চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু আজ, ২০২০ সালে উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরও সুযোগ, যেভাবে আবেদন

 চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু আজ, ২০২০ সালে উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরও সুযোগ, যেভাবে আবেদন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হবে আজ বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায়। অনলাইনে এ আবেদন চলবে ১৮ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত। ২০ জানুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত দেওয়া যাবে ভর্তির আবেদন ফি। এবারের ভর্তি পরীক্ষা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও দুটি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার ও ভর্তি কমিটির সচিব এস এম আকবর হোসাইন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

ভর্তির যোগ্যতা—

যেসব আবেদনকারীর বাংলাদেশের যেকোনো শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০২০ বা ২০২১ সালের মাধ্যমিক বা দাখিল বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২২ বা ২০২৩ সালের উচ্চমাধ্যমিক বা আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া সাপেক্ষে ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লিখিত সংশ্লিষ্ট ইউনিট বা উপ-ইউনিট বা অনুষদ বা বিভাগ বা ইনস্টিটিউটে ভর্তির যোগ্যতা আছে, তাঁরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে।

দ্বিতীয়বার আবেদনের সুযোগ—

২০২০ সালের মাধ্যমিক বা দাখিল বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২২ সালের উচ্চমাধ্যমিক বা আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। তবে মাধ্যমিক বা দাখিল বা সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক বা আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ নম্বর কর্তন করে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

আবেদনপ্রক্রিয়া—

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে নির্দেশিত প্রক্রিয়া অনুসরণ করে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা।

আবেদন ফি—

এবার প্রতিটি ইউনিট বা উপ-ইউনিটের আবেদনে প্রসেসিং ফিসহ আবেদন ফি এক হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্ধারিত আবেদন ফি মোবাইল ব্যাংকিং ‘রকেট’ বা ‘বিকাশ’-এর মাধ্যমে জমা দেওয়া যাবে।

নম্বর বন্টন—

প্রতিটি সংশ্লিষ্ট ইউনিট বা উপ-ইউনিটে ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা হবে। ব্যবহারিক পরীক্ষায় (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) অংশগ্রহণ করতে হবে। ভর্তি পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। তবে এবার সি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রতিটি ১ নম্বরের প্রশ্নের ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ এবং প্রতিটি ২ নম্বরের প্রশ্নের ভুল উত্তরের জন্য ০.৫০ কর্তন করা হবে।

দ্বিতীয়বার পরীক্ষায় ৫ নম্বর যেভাবে কর্তন—

দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে চাইলে ৫ নম্বর কাটা যাবে। ২০২১ সালের মাধ্যমিক বা দাখিল বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২৩ সালের উচ্চমাধ্যমিক বা আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যতীত অন্য শিক্ষাবর্ষের মাধ্যমিক বা দাখিল বা সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক বা আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে তাঁদের নিজ নিজ সর্বমোট (MCQ+SSC & HSC) বা সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএর গুণিতক + ব্যবহারিক (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ (পাঁচ) নম্বর কর্তন করে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

কেন্দ্র নির্বাচন যেভাবে—

এবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস এবং নিকটস্থ অন্য কেন্দ্র ছাড়া আরও দুটি বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সেগুলো হলো ঢাকা বিভাগে (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস) এবং রাজশাহী বিভাগীয় শহরে (রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস)। ভর্তি পরীক্ষা একই সময় ও তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। তবে বি-১ ও ডি-১ উপ-ইউনিটের পরীক্ষা শুধু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। আবেদনকারী শিক্ষার্থী কোন বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক, আবেদনের সময় ইউনিট বা উপ-ইউনিটে ১ম, ২য় ও ৩য় পছন্দের অপশন, অর্থাৎ ৩টি কেন্দ্রের সবগুলো পছন্দ অনুযায়ী সঠিকভাবে নির্বাচন করতে হবে।

ইউনিটভিত্তিক তথ্য—

এবারের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় এ, বি, সি ও ডি—এই চারটি ইউনিট ও দুটি উপ–ইউনিট বি-১ ও ডি-১ রয়েছে। এর মধ্যে এ ইউনিটের অধীন সব বিজ্ঞান ও জীববিজ্ঞান বিভাগ বা ইনস্টিটিউট, বি ইউনিটের অধীন কলা ও মানবিক অনুষদ, সি ইউনিটের অধীন বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ এবং ডি ইউনিটের অধীন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সব বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে। ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লেখিত সংশ্লিষ্ট ইউনিট বা উপ-ইউনিট এবং অনুষদ, বিভাগ বা ইনস্টিটিউটভিত্তিক ভর্তির যোগ্যতা ভর্তির ওয়েবসাইটে বিস্তারিত পাওয়া যাবে।

৩৬০ টাকা

ORDER NOW

৩৬০ টাকা

ORDER NOW

জিসিই (ও লেভেল এবং এ লেভেল) ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যেসব আবেদনকারী ২০২০ বা ২০২১ সালের জিসিই ও লেভেল পরীক্ষায় এবং ২০২২ বা ২০২৩ সালের জিসিই এ লেভেল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন এবং ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লেখিত ন্যূনতম যোগ্যতা রয়েছে, তাঁরা সংশ্লিষ্ট ইউনিট বা উপ–ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন। এ–সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাদি ভর্তির ওয়েবসাইটে প্রচারিত ভর্তি নির্দেশিকায় বর্ণিত আছে।

জিসিই (ও লেভেল এবং এ লেভেল) অথবা সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেটধারী আবেদনকারীকে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষাগুলোর সমমান করার জন্য বিজ্ঞান অনুষদ অফিসে তাঁর গ্রেডশিট বা মার্কশিটগুলোর ফটোকপিসহ আবেদনের সঙ্গে রেজিস্ট্রার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুকূলে অগ্রণী ব্যাংক চবি শাখা থেকে সংগৃহীত এক হাজার টাকার পে-অর্ডার সমতা নিরূপণ ফি হিসেবে প্রদান করতে হবে।

৩৬০ টাকা

ORDER NOW

৩৬০ টাকা

ORDER NOW

 আবেদন সংশোধনের সময়

 ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের অনলাইন আবেদনপ্রক্রিয়ার নিয়মাবলি চবির ভর্তির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। আবেদনপত্রে যেকোনো প্রকার সংশোধনী বা ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত যেকোনো ডকুমেন্টের ডুপ্লিকেট কপি নেওয়ার জন্য (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ৩০০ টাকা সার্ভিস চার্জ প্রযোজ্য হবে। অর্থাৎ, আবেদনসংক্রান্ত সব সংশোধনী ৪ জানুয়ারি থেকে ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত সংশোধন করা যাবে।

ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

Eadmin

Related post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *